Tuesday, February 20, 2024
গল্প

শৈত্যের গান

24 thoughts on “শৈত্যের গান

  • প্রদীপ্ত

    বেশ লাগল আপনার এই বিপর্যয় পরবর্তী হিমযুগ কবলিত কলকাতাকে ।

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ প্রদীপ্ত বাবু।

      Reply
  • সহস্রাংশু গুহ

    দুর্দান্ত ভাই, ভাবিনি কখনো বাংলা ভাষায় এরকম লেখা পড়তে পাব। Day after tomorrow তে যেরকম বরফ ঢাকা নিউ ইয়র্ক দেখিয়েছে সেরকম দেখেই অভস্ত্য ছিলাম আমি , কলকাতাকে পটভূমি করে তুমি যে পোস্ট এপোক্যালিপ্টিক ছবি এঁকেছো তা জাস্ট অনবদ্য। কুর্নিশ তোমায় , কুর্নিশ

    Reply
    • সোহম

      এটা অনেকটা ভাবনাকে একটা জায়গায় ঢোকানোর চেষ্টা। আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুশি হলাম

      Reply
  • বাংলা স্পেকুলেটিভ ফিকশনে নবযুগ আসবে তখনই, যখন তা সময়ের দাবি মেনে এগিয়ে যাবে ডিস্টোপিয়া আর আশার দিগন্তের দিকে। এই লেখা তারই পদধ্বনি। চরৈবেতি সোহম।

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ ঋজুদা। আশা করবো এরকম গল্প আরো লেখার।

      Reply
  • Soumya Sundar Mukherjee

    কলকাতার এই শৈত্য যেন পড়তে পড়তে অনুভব করা যায় নিজের অস্থি-র অন্তরালে। খুব ভাল লাগল।

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ সৌম্যবাবু।

      Reply
  • সন্দীপন গঙ্গোপাধ্যায়

    পূর্বনারী কিম্বা পূর্বপুরুষের থেকে পাওয়া উত্তরাধিকার নয় বরং উত্তরপ্রজন্মের থেকে পাওয়া ‘সুদসহ ধার’ এই সাধের সভ্যতার যে ছবি ফুটে উঠেছে নিকট ভবিষ্যতের ক্যানভাসে তা মুন্সিয়ানার দাবি রাখে। বিশেষ করে অকুস্থল যখন আমাদের ভালোবাসার শহর। বাংলা কল্পবিজ্ঞান জাগছে শৈত্যের ঘুম ভেঙে। এমন লেখা সেই আশাই জাগায়।

    Reply
    • সোহম

      গল্পটা যে “Of the Bengalis, for the Bengalis, by a Bengali”. এক জায়গায় রিজেক্টেড হইয়াছে বলে কল্পবিশ্বএ এই লেখা দিতে খুব কিন্তু কিন্তু করছিলাম। এক সম্পাদক ধমক দিতে মেল করেছি। যাক। উৎরেছি।

      Reply
  • সুদীপ

    অসাধারণ বললে কম বলা হয়। আমার অনুরোধ, সোহমবাবু লেখাটার প্লট নিয়ে একটা পূর্ণাঙ্গ উপন্যাস লিখে ফেলুন। ডিস্টোপিয়ান সাহিত্যে হয়ত বাস্তব অর্থে বাংলার প্রথম উপন্যাস হয়ে থাকবে। অনেক ধন্যবাদ এই গল্পের জন্যে।

    Reply
    • সোহম

      এই কথাটা এখন আমার ডায়লগ হয়ে গেছে 😀 । “সময় এবং তার স্বল্পতা আমার এখন সবথেকে বড় শত্রু”। অনুরোধ হয়তো রাখতে পারবো না, কিন্তু এই মাপের গল্প নিয়ে ফেরার চেষ্টা করবো এই পত্রিকার ‘পাতায়’। ধন্যবাদ।

      Reply
  • Partha De

    A mind blowimg dystopian scifi story. Having seen a kolkatascape of near future a sudden chill runs down the spine.

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ পার্থবাবু।

      Reply
  • Aitijhya

    erakam din siggiri asbe.
    I loved to read your story of future(very near!!!!)

    Aitijhya

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ আপনাকে।

      Reply
  • কৃশাণু নস্কর

    আপনার লেখার ভঙ্গি এবং বাক্য গঠন অসাধারণ। গদ্য রচনায় মুনশিয়ানা লক্ষ্যণীয়। সাধারণ narrative story অসাধারণ হয়ে উঠেছে আপনার অপূর্ব লেখার গুণে। কল্পবিজ্ঞানকে সার্থক সাহিত্য করে তুলেছেন আপনি।

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ লেখাটি ধৈর্য নিয়ে পড়ার জন্য।

      Reply
  • Shanku Goswami

    অনবদ্য। এর পর যতবার মেট্রো রেলের সফর করব। এই কাহিনী মনে পড়বে

    Reply
    • সোহম

      মেট্রো সফরকালীনই এই গল্প আমার মাথায় এসেছিল। ধন্যবাদ।

      Reply
  • Giridhar Maji

    Eta niye ekta full upponyas er dabi kintu arekbar vebe dekhar moto…

    Reply
    • সোহম

      ধন্যবাদ দাদা। উপন্যাসের দাবি পূরণ করার প্রচেষ্টা করবো।

      Reply
  • যশোধরা রায়চৌধুরী

    ভীষণ ভাল একটা লেখা পড়লাম যেটা ঐ নির্মিত রচিত দৃশ্যপটের মধ্যে নিয়ে দাঁড় করায়। উত্তীর্ণ লেখা।

    ডি স্যালাইনেশন প্ল্যান্ট ব্যাপারটার তো সত্যিই সফল ব্যবহার করেছে ইস্রায়েল। কাজেই আমাদের এখানেই বা নয় কেন।

    হিমযুগের সঙ্গে কলকাতাকে খাপ খাওয়ানো, মেট্রো আর হাওড়া বনাম সেন্ট্রাল, দুর্দান্ত। বৃহত্তর ইতিহাস/রাজনীতি এবং তার পরের ধাপে, দর্শনের দিকটা সর্বদা সোহমের গল্পে আসে… সেটা আরেকটা প্রাপ্তি। এখানেও একেবারে সুপ্রযুক্ত।

    Reply
  • Pinaki mitra

    খুব ভাল লাগল ।

    Reply

Leave a Reply

Connect with

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!
Verified by MonsterInsights